Types of media | unguided media | Satellite network system

types of media

মিডিয়া তথা ডেটা প্রেরনের মাধ্যম দুই প্রকারঃ- 

  1. গাইডেড মিডিয়া-Guided Media
  2. আনগাইডেড মিডিয়া-Unguided Media




আন গাইডেড মিডিয়া (Unguided Media):- 









আনগাইডেড মিডিয়াও হলো তথ্য প্রেরনের মাধ্যম কিন্তু এক্ষেত্রে কোনো রকম তারের সাহায্য ছাড়া বেতার মাধ্যমে ডেটা পাঠানো হয়।
যেমনঃ- ইনফ্রারেড তরঙ্গ,রেডিও তরঙ্গ,স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক সিস্টেম ইত্যাদি।

ইনফ্রারেড তরঙ্গ(Infrared Wave):- 

যে সব তড়িৎ চুম্বকের কম্পাঙ্গ 300 GHz থেকে 400THz এর মধ্যে হয়।তকে ইনফ্রারেড তরঙ্গ বলে।

এটি অল্প দূরত্বের মধ্যে সংকেত আদান প্রদানের জন্য ব্যবহার করা হয়।এক্ষেত্রে সংকেত প্রেরনের জন্য LED অর্থাৎ Light Emitting Diode ব্যবহার করা হয়।

উদাহরণঃ- টি.ভি. রিমোট।

স্মরণীয় বিষয়ঃ- এক্ষেত্রে ইউনি ডায়রেকশন অ্যান্টেনা ব্যবহার করা হয়, ফলে সোজা দিকেই সংকেত পাঠাতে সক্ষম। তবে বর্তমানে টি.ভি. রিমোট গুলিতেও ওমনি ডায়রেকশন ব্যবহার করা হচ্ছে।



রেডিও তরঙ্গ(Radio Wave):- 

যে সমস্ত ইলেকট্রম্যাগনেটিক তরঙ্গের কম্পাঙ্গ 3KHz থেকে 1GHz এর মধ্যে হয়,তাকে রেডিও তরঙ্গ(Radio Wave) বলে। এক্ষেত্রে ওমনি ডায়রেকশন অ্যান্টেনা ব্যবহার করা হয়।যার ফলে সব দিকেই সংকেত পাঠাতে সক্ষম।

উদাহরণঃ- FM রেডিও।


মাইক্রোওয়েভ তরঙ্গ(Microwave Wave):- 

যে সমস্ত ইলেকট্রম্যাগনেটিক তরঙ্গের কম্পাঙ্গ 1GHz থেকে 300GHz এর মধ্যে হয়,তাকে মাইক্রোওয়েভ তরঙ্গ(Microwave Wave) বলে।এক্ষেত্রে ইউনি ডায়রেকশন অ্যান্টেনা ব্যবহার করা হয়।খুব উচ্চ কম্পাঙ্গের হওয়ায় এটি বাঁকতে পারে না,তবে অনেক দূর যাবার প্র এই আওয়াজ দুর্বল হয়ে পড়ে,যার ফলে আওয়াজ জোরালো করার জন্য কিছুদূর অন্তর রিপিটারের প্রয়োজন হয়।

উদাহরণঃ-  ওয়্যারলেস ল্যান সিস্টেম।


স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক সিস্টেম(Satellite network system)



স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক সিস্টেম(Satellite network system):- স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক সিস্টেমও একটি আনগাইডেড মিডিয়ার উদাহরণ।তথ্য প্রেরন ও গ্রহনের কাজে স্যাটেলাইট বিশেষ ভুমিকা পালন করে। সাধারণত তিন ধরনের স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক সিস্টেম ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

  1. Geostationary Earth Orbit(G.E.O.)
  2. Low Earth Orbit(L.E.O.)
  3. Middle Earth Orbit(M.E.O.)


Geostationary Earth Orbit(G.E.O.):- 

এই সমস্ত কৃত্রিম উপগ্রহের গতি প্রায় পৃথিবীর গতির সমান। পৃথিবী পৃষ্ট থেকে প্রায় 22000 মাইল উঁচুতে স্থাপন করা হয়।ভারতের একটি Geostationary Earth Orbit এর উদাহরণ হলো "INSAT1B"


Middle Earth Orbit(M.E.O.):-

পৃথিবী পৃষ্ট থেকে প্রায় 18000 মাইল উঁচুতে স্থাপন করা হয়।আমরা যে মোবাইলে GPS ব্যবহার করি, তা আসলে এর Middle Earth Orbit.বিভিন্ন যানবাহন ও জাহাজের অবস্থান নির্ণয় করতে এটি ব্যবহার করা হয়।

Low Earth Orbit(L.E.O.):-

পৃথিবী পৃষ্ট থেকে প্রায় 400 মাইল থেকে 1000 মাইল উঁচুতে স্থাপন করা হয়। ভিডিও কল, ইমেল পাঠানো ইত্যাদি কাজে এই Low Earth Orbit ব্যবহার করা হয়।


No comments

Powered by Blogger.